বৃহস্পতিবার ৪ জুন ২০২০ ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

কোভিড-১৯
বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের বিশেষ প্রণোদনা দেয়ার দাবি
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৩ পিএম আপডেট: ০৬.০৪.২০২০ ১:১৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সরকারিকরণ থেকে বাদপড়া ১৬০০০ বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য বিশেষ আর্থিক প্রণোদনা দেয়ার  দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।    

এতে বলা হয়, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক ঘোষণায় প্রথমত- ৩২০০০ (বত্রিশ হাজার) এবং পরবর্তী বঞ্চিত আরও ৪১৬০টি মোট ৩৬১৬০টি বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ  করেন। জাতি গঠনের নিপুন কারিগর, প্রাথমিক বিদ্যলয়ের শিক্ষকদের অভিভাবক হয়ে হৃদয়ে চির স্মরনীয় হয়ে আছেন বঙ্গবন্ধু। 

এরপর প্রায় ৪০ বছর অতিবাহিত হওয়ার পর বাংলাদেশের মহান স্থপিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসূরী প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা দায়িত্ব হাতে নেয়ার পর শিক্ষার ভিত্তি মজবুত করতে ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি ২৬,১৯৩ টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের ঘোষণা দিয়ে জাতির পিতার মত আরও একটি ইতিহাস রচনা করেছেন। 

কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, জাতীয়করণ কালীন ২৬,১৯৩ টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিসংখ্যাণ করা হয়েছিল, তার সংখ্যা যথাযথ না হওয়ায় বাদ পড়া এসব শিক্ষক বিভিন্ন সময়ে অনশনসহ নানা কর্মসূচি পালন করে।এর প্রেক্ষিতে জাতীয়করণে হালনাগাদ তথ্য চাওয়া হলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মহোদয় সঠিক তথ্য না দেওয়ায় আবারো বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণ হতে বাদ পড়ে যায়। 

বর্তমানে  শিক্ষকরা বিকাল ৪ টা থেকে পারটাইম জব করে। কেউবা বাসাবাড়ীতে টিউশনি করে, কেউ হোটেলে কাজ করে, কেউবা ইজিবাইক চালিয়ে জীবন যাপন করেন। বর্তমানে সারা বিশ্বে কোভিড-১৯ যেভাবে ডানা বেধেছে বাংলাদেশও তার বাইরে নয়। বড় আশার কথা হলো প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ও ৩১ টি নির্দেশনার মাধ্যমে বর্তমান করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আছে। 

বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকেরাও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে চলছে এবং সংগঠন থেকে মেনে চলার আহবান করা হয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো বেসরকারি শিক্ষকেরা কোন বেতন ভাতা পায়না এমতাবস্থায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকায় অনেক শিক্ষক শিক্ষিকাদের খাদ্য অভাব দেখা দিয়েছে। 

প্রয়োজনে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের মাধ্যমে অথবা সংগঠনের মাধ্যমে এই অসহায় শিক্ষকদের পাশে দাড়ানোর জন্য  তহবিল থেকে আর্থিক প্রণোদনাসহ পরবর্তীতে জাতীয়করণের জন্য হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মামুনুর রশিদ খোকন।


ডেল্টা টাইমস্/সিআর/জেড এইচ

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]