শনিবার ৬ জুন ২০২০ ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনা ছড়াচ্ছে মোবাইল ফোন!
ডেল্টা টাইমস্ ডেস্ক:
প্রকাশ: সোমবার, ১৮ মে, ২০২০, ১০:০২ এএম | অনলাইন সংস্করণ

করোনা ছড়াচ্ছে মোবাইল ফোন!

করোনা ছড়াচ্ছে মোবাইল ফোন!

অজান্তেই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আপনার ঘরে ঢুকতে পারে নভেল করোনাভাইরাস। করোনার চতুর্মুখী সংক্রমণ ছড়াতে মারাত্মক ভূমিকা রাখতে পারে এ মোবাইল ফোন। এমন দাবি করেছেন দুবাই পুলিশের এক বিজ্ঞানী। গবেষণা করে তিনি বলেছেন, ৪৮ লাখ মানুষের করোনা সংক্রমণের পেছনে বড় ভূমিকা ছিল মোবাইল ফোনের।

অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সঙ্গে নিয়ে একটি গবেষণা পরিচালনা করে এমন দাবি করেছেন দুবাই পুলিশের ফরেনসিক সায়েন্স অ্যান্ড ক্রিমিনলজি বিভাগের প্রশিক্ষণ ও উন্নয়নবিষয়ক পরিচালক মেজর ড. রাশিদ আল গাফরি। জার্নাল অব ট্রাভেল মেডিসিন অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজে তাঁদের একটি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

সেখানে ড. আল গাফরি বলেন, ‘করোনাভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ ছড়ানোর একটি মোক্ষম মাধ্যম আমাদের হাতে থাকা মোবাইল ফোন। আমরা ভিন্ন ভিন্ন ধরনের অনেক ফোন নিয়ে বিশ্লেষণ করেছি, এর গায়ে শত শত জীবাণু মিলেছে। ব্যাকটেরিয়া ও নভেল করোনাভাইরাসের মতো অনেক ভাইরাস বহন করতে সক্ষম মোবাইল ফোন। মহামারি ছড়াতে ব্যাপক ভূমিকা থাকতে পারে ফোনের।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ বিজ্ঞানী জানান, মোবাইল ফোন ব্যবহারের সময় গরম হয় এবং এর ফলে জীবাণু ও ভাইরাসগুলো বেশি সময় সেখানে থাকতে পারে এবং নিজেদের পুনরুৎপাদন করতে পারে। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির ফোনে ভাইরাসের জীবাণু থেকে যেতে পারে। এ কারণে কর্মক্ষেত্রে, গণপরিবহনে, নৌজাহাজে এবং উড়োজাহাজের যাত্রীদের মধ্যে ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া ফোনের মাধ্যমে অবলীলায় ছড়াতে পারে।

তবে করোনাভাইরাস আসার আগে কেউই তেমন করে নিজের ফোনটি জীবাণুমুক্তকরণের উদ্যোগ নিতেন না। এখন অনেকেই নিয়মিত ফোনটাকে জীবাণুমুক্ত রাখার ব্যবস্থা নিচ্ছেন।

যেভাবে ফোন থেকে নিরাপদ থাকবেন

নিয়মিত হাত ধোয়ার পাশাপাশি মোবাইল ফোনটাকেও অ্যালকোহলে তৈরি স্যানিটাইজার দিয়ে জীবাণুমুক্ত করার পরামর্শ দিচ্ছেন আল গাফরি। তিনি বলছেন, মোবাইল ফোনের পাশাপাশি যেসব টাচস্ক্রিন ডিভাইস ব্যবহার করা হয়, সবই নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করা জরুরি। ফোন যেন রোগের বাহন না হয়, খেয়াল রাখতে হবে।

এদিকে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ২২০ জন মারা গেছে। মোট আক্রান্ত হয়েছে ২৩ হাজার ৩৫৮ জন। আর সুস্থ হতে পেরেছে আট হাজার ৫১২ জন। তবে আশার দিক হচ্ছে, দেশটিতে মাত্র একজন করোনা রোগী নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে আছে। বাকি ১৪ হাজার ৬২৫ জন রোগী বাড়িতে ও হাসপাতালে স্বাভাবিক চিকিৎসা নিচ্ছে।



ডেল্টা টাইমস্/সিআর/জেড এইচ


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]