শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ফিচার: ভিন্নধর্মী ঈদ, ভিন্নধর্মী পরিকল্পনা
মুতাছিম বিল্লাহ রিয়াদ
প্রকাশ: বুধবার, ২০ মে, ২০২০, ৪:১৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ফিচার: ভিন্নধর্মী ঈদ, ভিন্নধর্মী পরিকল্পনা

ফিচার: ভিন্নধর্মী ঈদ, ভিন্নধর্মী পরিকল্পনা

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। প্রতিবছরের ন্যায় মাসব্যাপী সিয়াম সাধনা শেষে শাওয়ালের নতুন চাঁদ নিয়ে আসছে খুশির বার্তা। দরজায় কড়া নাড়ছে ঈদের আনন্দ। আর কিছুদিন পরেই পবিত্র ঈদুল ফিতর। মুসলিম উম্মাহর অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। প্রতিবছর দিনটিকে ঘিরে মনের ভেতরে একটা ছটফটানি শুরু হয়ে যায় সবার মাঝে। কেনাকাটা থেকে শুরু করে নানা আয়োজন, নানা পরিকল্পনা দেখা যায় শিক্ষার্থীদের মাঝে। তবে এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। মহামারী করোনায় সব আমেজ নিস্তব্ধ হয়ে আছে। গৃহবন্দি জীবন কাটাচ্ছে সবাই। এবারের ঈদ উৎযাপন নিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শিক্ষার্থীদের ভিন্নধর্মী পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন দৈনিক ডেল্টা টাইমসের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি-মুতাছিম বিল্লাহ রিয়াদ।

আখতার হোসেন আজাদ, লোক-প্রশাসন বিভাগ

যদিও ইদের প্রকৃত আনন্দ থাকে ছোটবেলায়। বড় হবার সাথে সাথে ফিকে হতে থাকে সব আনন্দ। তবুও অন্যবারের তুলনায় এবারের ইদ আরো ভিন্ন হবে ভেবেই হৃদয় ভারাক্রান্ত হয়ে উঠছে। ছুটির দিনগুলো বাড়িতে থেকেই জনসচেতনতা সৃষ্টিতে অনলাইনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছি। এবার যেহেতু মসজিদে ইদের নামায অনুষ্ঠিত হবে, তাই পরিকল্পনা করেছি গ্রামের বন্ধুদের নিয়ে সংগঠিতভাবে স্বেচ্ছাসেবকের ভূমিকা পালন করবো। হ্যান্ডস্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিতকরণ এবং মুসল্লিদের মাঝে নিরাপদ দুরত্ব নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি বাড়ি থেকে অজু করে আসতে সবাইকে উৎসাহিত করবো। ইদের নামায শেষ হলে দ্রুত মুসল্লিদের ঘরে ফেরার আহ্বান জানাবো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কিংবা অন্য কোন ভার্চুয়াল মাধ্যম ব্যবহার করে ইদের শুভেচ্ছা ও কুশল বিনিময় করতে পরামর্শ দেবো।
সেই সাথে আরেকটি পরিকল্পনা করেছি, ইদের প্রাপ্ত সেলামি সম্পূর্ণই করোনায় কর্মহীন অসহায় ও দুঃস্থ ব্যক্তিদের সহযোগিতায় ব্যয় করবো।

সমা খাতুন, ইংরেজী বিভাগ

ঈদ মানেই আনন্দ-খুশির আমেজ । দীর্ঘ এক মাস সিয়াম পালন শেষে আসে মহা আনন্দের ঈদ। এই দিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত থাকে কত পরিকল্পনা! মায়ের হাতের নানান পদের রান্না, বন্ধু-বান্ধবীদের সাথে ঈদ মেলায় ঘুরতে যাওয়া, আড্ডা দেওয়া, আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে যাওয়া সবই এখন স্মৃতিপটে নাড়া দিয়ে উঠেছে। করোনায় সকল পরিকল্পনা এবার থমকে অাছে। সবাইকে করে রেখেছে গৃহবন্দি। হয়তো আমার একটু অসাবধানতায় আক্রান্ত হতে পারে একটি পুরো পরিবার। তাই এবার ঈদ কাটাতে চাই পরম ভালবাসায়, অতি আপন মা-বাবার সাথে। ঈদের আনন্দ সবার সাথে ভাগাভাগি করতে শপিংয়ের টাকা দিয়ে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে চাই। সময়ের বিবর্তনে ঈদ বার বার আসবে। বিশ্বের এই ক্রান্তিলগ্ন কেটে গেলে না হয় আগামী বছর থেকে আবার ধুমধাম করে ঈদ পালন করবো। এবার নিজের, পরিবারের এবং দেশের স্বার্থে ঘরে থাকব, সুস্থ থাকব।

আবু সোহান, ব্যবস্থাপনা বিভাগ

ঈদ মানেই আনন্দ। তবে এবারের ঈদটা একটু অন্যরকম। কিছুটা অস্বাভাবিকতার ছোঁয়ায় সব এলোমেলো মনে হচ্ছে। প্রতিবছর এ আনন্দের দিনটিকে ঘিরে আবেগের বশবর্তী হয়ে নানান আমেজ আর কল্পনা দিয়ে বাস্তবতা সাজায়। কিন্তু চলমান পরিস্থিতিতে একসাথে ঈদগাহে নামাজ আদায় করা, পুলকিত হৃদয়ে কারোর সাথে কোলাকুলি করাও এবার হবে না। এমনকি বন্ধুর বাড়িতে গিয়ে আমরা রসের গল্প করে ভাব জমিয়ে ঈদের সেমাইও খেতে পারবো না। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক এবং হতাশার। পরিকল্পনা করেছি সারাদিন ছোটো ভাই, মা-বাবার সাথে মিষ্টি মধুর গল্প করে সময় কাটাবো। বাড়িতে বসেই আত্মার সাথে সম্পর্ক যাদের তাদের ফোন কল দিয়ে খোঁজ নেবো। দেশের এমন পরিস্থিতিতে বাড়িতে থেকেই ঈদ উদযাপন করুন, সুস্থ থাকুন। অগ্রিম ঈদ মোবারক।

মাসুদ রানা, ইংরেজী বিভাগ

বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা আক্রান্ত। কোটি কোটি মানুষের আর্তনাদে প্রকম্পিত বিশ্বের প্রতিটি জনপদ। এরই মাঝে উপস্থিত মুসলিম জগতের সবচেয়ে আনন্দের দিন পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদ মানেই আনন্দ। ঈদ মানেই রঙ-বেরঙের নতুন পোশাক, আত্মীয় স্বজনের মিলন, হৈ-হুল্লোড়ে সেমাই পায়েশ খাওয়া ইত্যাদি। প্রতিবছর ঈদের দিন সকাল সকাল গোসল শেষে ঈদগাহে সালাত আদায় ও পড়ন্ত বিকেলে বন্ধুদের সাথে আড্ডায় কেটে যেতো। তবে এবার সেরকম কিছুই হবেনা। করোনা প্রাদূর্ভাব থেকে বাঁচতে প্রতিদিনের মত গৃহেবন্দি থাকতে হবে। দেশের এ ক্রান্তিকালে নতুন জামা নয়, উচ্চ মানের খাবার নয়, একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে সাধারণ মানুষের পাশে থেকেই  উৎযাপন করব এই বারের ঈদ। পরিবারের সবাইকে নিয়ে সামাজিক সুরক্ষার মধ্যে দিয়ে ঘরোয়া পরিবেশেই পালন করব এই মহা উৎসব।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]