বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

প্রশাসনের নাম ভাঙ্গীয়ে মুদি দোকানে হামলা ও লুট, আহত-২
সুবর্ণচরে লকডাউনের সুযোগে সক্রিয় ছিনতাইকারী চক্র
সুবর্ণচর প্রতিনিধি, নোয়াখালী
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মে, ২০২০, ৮:১৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সুবর্ণচরে লকডাউনের সুযোগে  সক্রিয় ছিনতাইকারী চক্র

সুবর্ণচরে লকডাউনের সুযোগে সক্রিয় ছিনতাইকারী চক্র

গতকাল রাত ৯ ঘটিকার সময় ২নং চরবাটা ইউনিয়নের চরমজিদ ভূঞারহাট বাজারে মোবাইল কোর্টের অভিযান টিম বাজার পরিদর্শনে আসেন।টিমের প্রধান ছিলেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিট্রেট  সুবর্ণচর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি অফিসার আরিফুর রহমান ও ব্যাটেলিয়ান আনসার সদস্যবৃন্দ ,সাংবাদিক নেতৃবৃন্দগণ।বাজার পরিদর্শনে।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিট্রেট  আরিফুর রহমান ভুঞারহাট বাজারের সুইচ গেইট রাস্তার মাথাতে তাঁর গাড়িতে অবস্থান করেন এবং টিমের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ কে নির্দেশন করেন দোকান খোলা আছে কি না দেখতে  তারা নির্দেশনা পেয়ে এম,পি মার্কেটের দিকে যাএা কালে মেসার্স সোহেল ষ্টোর কে লকডাউন আইন অমান্য করে  রাতে দোকান খোলা রাখার দায়ে উওম মাধ্যম প্রহার করেন ব্যাটেলিয়ান আনসার সদস্যবৃন্দ। সাথে ছিলেন পরিদর্শন টিমের কার্যক্রম  লাইভ প্রচারের জন্য সুবর্ণচর উপজেলার ২/৩ জন  সাংবাদিক। ঐ সময় সোহেল (৪৫) ষ্টোর  কে খোলা রাখার দায়ে, সোহেল ষ্টোরের মালিক শাহাদাত কে আহত করেন ব্যাটেলিয়ান আনসার সদস্যবৃন্দ, আহত অবস্থায় শাহাদাত ও তার সাথে দোকানে  থাকা অন্য সদস্যবৃন্দ নিজে কে বাঁচাতে দোকান খোলা রেখে দৌড়ে পালিয়ে যায়। 

পরিদর্শদন টিম চলে গেলে দোকানদার এসে তার ক্যাশ বাক্স খোলা দেখেন এবং ফিল্ড থেকে আনা ৫০,০০০/- টাকা বাক্সে পাননি। তখন তিনি চিৎকার করে স্থানীয়দের জানান।  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপস্হিত স্হানীয় জনতা মন্তব্য করেন যে,মোবাইল কোর্ট টিমের সাথে থাকা প্রশাসনের লোক ছাড়া অন্য কেউ টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে।  চরমজিদ ভূঞারহাট বাজারের সাধারণ সম্পাদক শেখ সেলিম গত কাল রাতের এই বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন বলেন যে, মোবাইল কোর্ট টিমের সাথে আসা যে কেউ এমন ঘটনা করতে পারে।আমি উক্ত ঘটনার সঠিক তদন্ত করে,দোষী ব্যাক্তিদের তারাতারি খুজে বের করতে এসিল্যান্ড স্যার এবং ওসি শাহেদ স্যারের সহায়তা কামনা করছি। 

ঘটনার বিষয়ে মোবাইল কোর্ট টিমের ম্যাজিট্রেট সুবর্ণচর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরিফুর রহমানের  ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে 01705401028 বার বার চেষ্টা করলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি। তাই ঘটনা সম্পর্কে তার  কোন মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।স্থানীয় ব্যাক্তিগন মন্তব্য করেন, মোবাইল কোর্টের সাথে প্রশাসনের লোক ছাড়া অন্য যারা থাকে তারা এ কর্মের সাথে জড়িত রয়েছে, অন্যথায় দুষ্কৃতিকারীরা কিভাবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার খবর পায়।



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল থেকে (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]