বুধবার ২৮ অক্টোবর ২০২০ ১২ কার্তিক ১৪২৭

সিএনজি চালকের সততা, সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ফিরে পেলেন যাত্রী
আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ
প্রকাশ: রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:২৯ পিএম আপডেট: ২৭.০৯.২০২০ ৮:৩৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

 চালকের সততায় হারিয়ে যাওয়া সাড়ে ১৪ লাখ টাকা তিন দিন পর ফিরে পেলেন মালিক।  রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়া নিজ অফিসে টাকার মালিক রহিমা বেগমের কাছে টাকাগুলো তুলে দেন।  রহিমা বেগম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার চিনাইর গ্রামের মরহুম এনামুল হোসেনের স্ত্রী।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিকালে রহিমা বেগমসহ ৪জন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাউতলী বাস স্ট্যান্ড থেকে সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় করে চিনাইর গ্রামের বাড়িতে ফেরেন। এসময় তাদের সাথে একটি ব্যাগে সাড়ে ১৪ লাখ টাকা, জমির দলিল ও ব্যাংকের চেক বই ছিল।  কিন্তু নামার সময় ভুলে ব্যাগটি অটোরিক্সায় রেখে নেমে যান। 
সিএনজি চালকের সততা, সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ফিরে পেলেন যাত্রী

সিএনজি চালকের সততা, সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ফিরে পেলেন যাত্রী

পরে সিএনজি চালক রামরাইলের মনির হোসেন শনিবার সকালে সিটের পেছনে একটি ব্যাগ দেখতে পান।  বিষয়টি তিনি তার ফুফুা বনগজ গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সানু মিয়াকে জানান।  সানু মিয়া কাগজপত্র ঘেঁটে একটি মোবাইল নম্বর পেয়ে যোগাযোগ করে জানতে পারেন টাকাগুলো সিএনজি যাত্রী চিনাইর গ্রামের রহিমা বেগমের।  পরে তিনি বিষয়টি তাঁর আত্মীয় আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়াকে জানান। 

উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়া রোববার (২৭সেপ্টেম্বর) দুপুরে রহিমা বেগমের হাতে টাকাগুলো ফিরিয়ে দেওয়া হয়।  টাকা পেয়ে রহিমা বেগম স্বস্তি প্রকাশ করেন এবং সিএনজি চালককে ধন্যবাদ জানান।

সিএনজি চালক মনির হোসেন বলেন, যাত্রী নামিয়ে আমি বাড়িতে চলে যাই।  পরদিন শুক্রবার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাই। শনিবার সকালে সিএনজি পরিস্কার করার সময় টাকার ব্যাগটি পাই। টাকাগুলো মালিককে ফিরিয়ে দিতে পেরে আমি খুশি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিএনজি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম,এম মালেক জানান,আমার শ্রমিক ১৪ লাখ টাকা পেয়ে আখাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়ার মাধ্যমে প্রকৃত মালিকের ফিরিয়ে দেওয়াতে আমি খুবই খুশি হয়েছি। তার সততাকে ধন্যবাদ জানাই।                                  

আখাউড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়া বলেন, সিএনজি যাত্রী রহিমা বেগম ভুলে সাড়ে ১৪ লাখ টাকা সিএনজিতে ফেলে যায়।  সিএনজি চালক আমাকে জানালে আমি প্রকৃত মালিক ডেনে এনে তার হাতে টাকাগুলো তুলে দিয়েছি।





ডেল্টা টাইমস্/অমিত হাসান অপু/সিআর/জেডএইচ

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]