মঙ্গলবার ১৮ মে ২০২১ ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা
ডেল্টা টাইমস্ ডেস্ক:
প্রকাশ: শনিবার, ১ মে, ২০২১, ৫:৫১ পিএম আপডেট: ০১.০৫.২০২১ ৬:০৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

গত নভেম্বর ও ফেব্রুয়ারী থেকে ১০ জন আইন বিশেষজ্ঞ এবং ৩৪ জন আইনজীবি শিক্ষার্থী নিয়ে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের আইন (ইএলসিওপি) এবং ভারতের মহাত্মা জ্যোতিবা ফুলে রোহিলখণ্ড বিশ্ববিদ্যালয় (এমজেপি রোহিলখণ্ড বিশ্ববিদ্যালয়) এর মাধ্যমে 'ডিপিসিডাব্লু হ্যান্ডবুক আলোচনার প্রকল্প' নিয়ে আলোচনা হয়েছে।


ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

এটির মূল উদ্দেশ্য হল বিশ্বজুড়ে আইনী শিক্ষার্থী এবং নাগরিকরা ডিপিসিডাব্লু পাঠ্যক্রমের মাধ্যমে শান্তির মূল্য এবং চেতনা বুঝতে এবং যুদ্ধের সমাপ্তির জন্য এবং আন্তর্জাতিক শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য আন্তর্জাতিক রীতি বিকাশের মাধ্যমে শান্তি উপলব্ধিতে অবদান রাখতে সহায়তা করে। এই প্রকল্পটি কেবলমাত্র আফগানিস্তান, তিউনিসিয়া, রোমানিয়া এবং বিশ্বজুড়ে নয় এটি বাংলাদেশ ও ভারতে আইনজীবি শিক্ষার্থীরা দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।


ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

বাহিনীর ব্যবহার নির্মূল ও আন্তর্জাতিক শান্তির গ্যারান্টি সম্পর্কিত বর্তমান আন্তর্জাতিক আইনের পাশাপাশি সীমাবদ্ধতা এবং আন্তর্জাতিক শান্তির গ্যারান্টি সম্পর্কিত সীমাবদ্ধতা উন্নয়নের লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞগণ দ্বারা যুদ্ধের শান্তি ও নিবৃত্তির ঘোষণাপত্র (ডিপিসিডাব্লু) তৈরি করা হয়েছিল। একটি উপস্থাপিকা আকারে, ১০ টি নিবন্ধ এবং ৩৮ টি ধারা। গত মার্চ মাসে, ডিপিসিডাব্লিউর ৫ তম বার্ষিক স্মরণে সরকার, আন্তর্জাতিক সংস্থা, মহিলা ও যুব গোষ্ঠীর প্রধান, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ, প্রেস এবং নাগরিক সমাজের সদস্যসহ সমাজের সকল ক্ষেত্রের ১৩২ টি দেশ অংশ নিয়েছিল এবং এতে যোগ দিয়েছিল।

শিক্ষার্থীদের জন্য ডিপিসিডাব্লু এর একটি ধারা সম্পর্কে আলোচনা এবং উপস্থাপন করার একটি উপায় যা প্রায় এক ঘন্টা থেকে দুই ঘন্টার জন্য গ্রুপে উপস্থাপন করে এবং আইন বিশেষজ্ঞরা মন্তব্য করেন। তারা বাংলাদেশের আইনী শিক্ষার্থীদের থেকে পাঁচটি গ্রুপে বিভক্ত হয়েছিলেন এবং প্রতিটি গ্রুপে ডিপিসিডব্লিউয়ের ৬ নং অনুচ্ছেদ সম্পর্কে আলোচনা করেছিলেন। শান্তিপূর্ণ উপায়ে আন্তর্জাতিক বিরোধের সমাধানের কারণে মিয়ানমারের সাম্প্রতিক ইস্যুগুলির সাথে ডিপিসিডাব্লিউয়ের আর্টিকেল নং অনুচ্ছেদটি নিবিড়ভাবে সম্পর্কিত একটি ধারা। দলগুলির একটিতে কণ্ঠ দিয়েছিল যে আন্তর্জাতিক আদালত বিচারের এখতিয়ার বা রায়কে বিশ্বস্তভাবে কার্যকর করার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্য একটি গ্রুপে এই মতামত তৈরি করেছে যে এটি অতিরিক্ত প্রস্তাব দেয় যা শান্তিপূর্ণ উপায়ে আন্তর্জাতিক বিরোধ সমাধানের উপর জোর দেয়।

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা


ইলকোপের মানবাধিকার গ্রীষ্মকালীন বিদ্যালয়ের পরিচালক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ডঃ মাসুম বিল্লাহ ডিপিসিডাব্লু এর আলোচনায় বলেন, 'আমি আশা করি ডিপিসিডাব্লু হ্যান্ডবুক আলোচনা প্রকল্পটি শিক্ষার্থীদের মানসিকভাবে বৃদ্ধির সুযোগ হিসাবে কাজ করবে। প্রকল্পের প্রস্তুতির প্রক্রিয়ায় একে অপরের সাথে যোগাযোগ এবং সহযোগিতা করা সত্যই মূল্যবান সময়। তাই আমি আশা করি যে বাকি সময়টি একটি শান্তিপূর্ণ ও সম্প্রীতির মনোভাবের মধ্যে থাকবে'।

ভারতের মহাত্মা জ্যোতিবা ফুলে রোহিলখণ্ড বিশ্ববিদ্যালয় আইনজীবি স্টাডিজ অনুষদের ডক্টর অশোক কুমার বলেছেন, 'ডিপিসিডব্লু প্রকল্পটি বিশ্বজুড়ে শান্তির প্রচার করবে। আমি মনে করি এই সুযোগটি শিক্ষার্থীদের শান্তির জন্য কার্যকর আইন বিশ্লেষণ ও পরীক্ষা করার অনুমতি দেবে।'

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

এই প্রকল্পের মাধ্যমে আইনজীবি শিক্ষার্থীরা বুঝতে পেরেছেন যে শান্তি বজায় রাখা উচিত যাতে মানবজাতি কেবল নিজের দেশে নয় সমগ্র বিশ্বজুড়ে এটি স্থায়ীভাবে উপভোগ করতে পারে।
ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা

ডিপিসিডাব্লুর হ্যান্ডবুকে আন্তর্জাতিক শান্তি আইনের আলোচনা









ডেল্টা টাইমস্/এম আর/সিআর/জেড এইচ

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]