সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ ২ কার্তিক ১৪২৮

অসহায় মানুষদের পাশে 'সাইলেন্ট হ্যান্ডস সাপোর্ট'
ফারজানা আক্তার ঝিমি
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৫৫ পিএম আপডেট: ১২.১০.২০২১ ৬:৩১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

'সাইলেন্ট হ্যান্ডস সাপোর্ট ‘একটি নন প্রফিট অর্গানাইজেশন। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোই এই সংস্থার মুখ্য উদ্দেশ্য। কখনো অসহায় বৃদ্ধার ঘর মেরামত করে, কখনো বিধবার জন্য আ্য়ের ব্যবস্থা করে,আবার কখনো এতিম শিশুদের ভরন পোষনের ব্যবস্থা করে অনেক অসহায় মানুষের মনে জা্য়গা করে নিয়েছে এই সংস্থা। ইতোমধ্যে সাইল্যান্ট হ্যান্ডস সাপোর্টের একটি প্রজেক্ট এর কাজ শেষ হয়েছে, যে ছিলেন মর্তুজা খাতুন।

মর্তুজা খাতুন (৪০) মুগা গ্রামের বেলাবো থানার এবং নরসিংদী জেলার বাসিন্দা। মর্তুজা খাতুনের বিবাহ বিচ্ছেদের পরে ১৫ বছরেরও বেশি সময় বাবার বাড়িতেই থাকেন তিনি। পিতা মৃত মানিক চান। বর্তমানে মর্তুজা খাতুন তার ১৬ বছরের মেয়ে এবং ৮০ বছরের বৃদ্ধা মাতাকে নিয়ে পৈতৃক সূত্রে পাওয়া ২ শতাংশ জমির উপর একটি ভাঙ্গা বাড়িতে বসবাস করেন। মর্তুজা খাতুন জীবনের প্রয়োজনে অন্যের বাড়িতেও কাজ করেন আবার অন্যের কৃষি কাজেও সহায়তা করেন। এক কথায় যখন যে কাজ পান সেই কাজ করেই সংসার পরিচালনা করেন । মর্তুজা খাতুনের জীবনে একটাই ইচ্ছা এবং তাহল নিজে টাকা সঞ্চয় করে একটি ছোট বাড়ি তৈরী করবেন। আর তাই নিজের উপার্জনের টাকা থেকে কিছু কিছু করে টাকা জমানো শুরু করেন বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে। কিন্তু নিয়তির কি নির্মম পরিহাস এবং বুদ্ধির ভুলে ১৫ বছরের জমানো ৭০ হাজার টাকা (আনুমানিক) ইঁদুরে কেটে নষ্ট করে ফেলে। জমানো টাকা নিজের ভাঙ্গা ঘরের মাটির নিচে রাখেন যেন সঞ্চিত অর্থ কোন ভাবেই নষ্ট না হয় কিন্তু এত সাবধানতা অবলম্বন করেও শেষ রক্ষা হয়নি। এখন সে সহায় সম্বলহীন , নি:স্ব সাইলেন্ট হ্যান্ডস সাপোর্টের প্রতিনিধি যখন মর্তুজা খাতুনের বাড়ি যায় তখন সে চিৎকার করে কান্না করতে করতে বলছিল আমার সব শেষ হয়ে গেছে আমার সারা জীবনের জমানো টাকা ইঁদুরে নিয়ে গেছে।

সাইল্যান্ট হ্যান্ডস সাপোর্টের সহযোগিতায় মর্তুজা খাতুনকে ইতোমধ্যে একটি ঘর একটি টিউবওয়েল একটি রান্নাঘর এবং একটি টয়লেট করে দেওয়া হয়েছে। আর এইভাবেই এই সংস্থা বিরামহীন কাজ করে যাচ্ছে অসহায়, ছিন্নমূল মানুষের জন্য।




ডেল্টা টাইমস্/ফারজানা আক্তার ঝিমি/সিআর/আরকে

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]